Seo tips

ওয়েবসাইটের লোডিং টাইম বেড়ে যাই কেনো? এবং কিভাবে লোডিং টাইম কমাবেন বিস্তারিত

আসসালামু আলাইকুম হ্যালো বন্ধুরা কেমন আছেন সবাই আশাকরি ভালো আছেন ইনশাল্লাহ আমিও খুব ভালো আছি তাই আজকে আপনাদের মাঝে খুবই গুরুত্বপূর্ণ একটি আর্টিকেল নিয়ে হাজির হলাম আশা করি সবার উপকার হবে তাই সবাই মনোযোগ দিয়ে আর্টিকেলটি শেষ পর্যন্ত পড়বেন তো আজকে আমাদের টপিক হচ্ছে ওয়েবসাইটের কেন পেজ স্পিড কমে যায় এবং কি কি কাজ করলে বেশি স্পিড বেড়ে যাবে

আমাদের পুরো আর্টিকেল যদি আপনি ভালোভাবে পড়েন তাহলে অবশ্যই বুঝতে পারবেন কি কি কারনে এই সমস্যা গুলো হয় এবং এই সমস্যাগুলো সমাধান করতে পারবেন খুবই সহজে তো কথা না বাড়িয়ে চলুন আজকের মূল আলোচনায় চলে যাওয়া যাক

আমি আজকে যা আলোচনা করব এটি হচ্ছে ওয়ার্ডপ্রেস ওয়েব সাইটের জন্য সত্যি বলতে ব্লগার ওয়েবসাইটের খুব বেশি আমি জানিনা সেজন্য আমি শুধুমাত্র ওয়ার্ডপ্রেস ওয়েবসাইট এর পেজ স্পিড অফটোমাইজ নিয়ে কথা বলবো
তোর যাদের শুধুমাত্র ওয়ার্ডপ্রেস ওয়েবসাইট তারা এই পোস্টটি মনোযোগ দিয়ে পড়বেন একটি ওয়ার্ডপ্রেস ওয়েবসাইট এর বেশি স্পিড কমে যাওয়ার অনেকগুলো কারণ থাকতে পারে তার মধ্যে সর্বপ্রথম যে কারণটি সেটি হল হোস্টিং সার্ভার

আমরা সর্বপ্রথম আলোচনা করব কি কি কারণে আমাদের ওয়েবসাইটের স্পিড কমে যাচ্ছে

হোস্টিং সার্ভার এর জন্য কমে যাচ্ছে স্পিড?

একটি ওয়েবসাইটের প্রায় 70 পার্সেন্ট স্পিড কমে যেতে পারে হোস্টিং সার্ভার এর কারণে অনেক হোস্টিং সার্ভার আছে যাদের সার্ভিস নিলে টাইম লোড অনেক সময় নিয়ে থাকে তো আপনাকে সাইট তৈরি করার আগে অবশ্যই ভালোভাবে জানতে হবে হোস্টিং সার্ভার সম্পর্কে যদি আপনি বেনামী বা ভালো কোম্পানি থেকে হোস্টিং না নেন তাহলে ওয়েবসাইট তৈরি করার পর কিছুদিন পরে আপনার ওয়েবসাইটের স্পিড কমে যাবে এবং পেজ লোডিং অনেক সময় নিবে সেই জন্য সর্বপ্রথম ওয়েবসাইট তৈরি করার আগেই ভালো কোম্পানি থেকে হোস্টিং ক্রয় করুন দাম কিছুটা বেশি হলেও আপনি ভালো কোম্পানি থেকে হোস্টিং নেই কারণ আপনার ওয়েবসাইটের পেজ লোডিং কিন্তু অনেক বেশি হয়ে যায় তাহলে আপনার ওয়েবসাইটে পোস্ট গুলো গুগলে ভালোভাবে রেংক করবে না এবং আপনার ওয়েবসাইটে ইউজাররা খুব বেশি ডিজিট করবে না

থিমের কারণে স্পিড কমে যাচ্ছে?

আমরা অনেকেই ওয়েবসাইটের জন্য ফ্রি থিম গুলো ব্যবহার করে থাকি যে দিন গুলোর মধ্যে অনেক ভাইরাস থাকে এবং থিমগুলো সাইটে ইনস্টল করার পর ওয়েবসাইটের স্পিড খুবই কমে যায় সিমের মধ্যে যে সমস্যাগুলো থাকে তা হচ্ছে ইমেজ কোডিং সমস্যা অথবা অতিরিক্ত ডিজাইনের কারণে আপনার ওয়েবসাইটের স্পিড কমে যেতে পারে তো সব সময় চেষ্টা করবেন ভালো একটা থিম ক্রয় করে তারপর ওয়েবসাইটে ইন্সটল করতে এছাড়াও আপনি ওয়ার্ডপ্রেস এ থাকা দিন গুলো ব্যবহার করতে পারেন সেগুলো একদম পরিষ্কার থিম কোন ভেজাল নেই সবচেয়ে আপনার ভালো হবে পেইন্টিং গুলো যেগুলো ভালোভাবে ডিজাইন করা এবং অরিজিনাল থিম

অতিরিক্ত প্লাগিন ব্যবহার করা

আপনি হয়তো জানেন না যে একটি ওয়েবসাইটে যদি অতিরিক্ত প্লাগিন ব্যবহার করা হয় তাহলে সেই ওয়েবসাইটে স্পিড একেবারে চলে যাবে অনেকে আছেন যারা ছোট ছোট কাজের জন্য প্লাগিন ব্যবহার করেন এটা না করাই ভালো প্রয়োজনীয় প্লাগিন গুলো রেখে বাকিগুলো ডিটেকটিভ ডিলিট করে দিন ওয়েবসাইট থেকে তাহলে দেখবেন আপনার ওয়েবসাইট স্পিড অনেকটাই বেড়ে গিয়েছে সব সময় চেষ্টা করবেন আপনার ওয়েবসাইটে যেন দশটির নিচে প্লাগিন ইন্সটল থাকে কারণ এর চেয়ে বেশি প্লাগিন ইন্সটল থাকলে আপনার ওয়েবসাইটের স্পিড এতটাই কমে যাবে যে কচ্ছপের মত আপনার ওয়েবসাইটের লোডিং নিবে এতে করে আপনার গুগলের রেঙ্ক হারাবেন এবং ভালো ডিজিটর পাবেন না অনেক ভিজিটর আছে যারা কোন ওয়েব সাইটে ঢোকার পর পেজ লোডিং টাইম অনেকে সাথে সাথে সেই ওয়েবসাইট থেকে বেরিয়ে যায়

একটি আর্টিকেল এ অতিরিক্ত ইমেজ ব্যবহার করা

অনেক সময় দেখা যায় একটি আর্টিকেল এ আমরা একাধিক ইমেজ ব্যবহার করে থাকি যে কারণে আমাদের সেই আর্টিকেল পেজ এ রিচ স্পিড অনেকটাই কমে যায় এবং যে ইমেজগুলো আমরা ব্যবহার করি সেগুলো কেবি অনেক বেশি এই কারণে আপনার সেই পেজটির লোডিং টাইম অনেক বেশি হয়ে যাবে যদি আপনার একটি আর্টিকেল অনেকগুলো স্ক্রিনশট ব্যবহার করতে হয় তাহলে আপনি একটি আর্টিকেল এ একাধিক স্ক্রিনশট ব্যবহার না করে সে আর্টিকেলটির দ্বিতীয় পাঠ তৈরি করুন তাহলে আপনার একটি পেজের সবগুলো ইমেজ ব্যবহার করতে হবে না এবং স্পিড টাও বাড়বে না এবং পোষ্টের নিচে লিখে দিতে পারেন দ্বিতীয় পার্ট তাহলে আপনার ইউজার প্রথম পার্টি পড়ার পর সে দ্বিতীয়বার টি ক্লিক করে ওই আর্টিকেলটি ও পড়বে

বিজ্ঞাপনের জন্য পেজ স্পিড কমে যায়

আপনি যদি একাধিক বিজ্ঞাপন একটি পেজে বসান বা সো করান তাহলেও আপনার সেই পেজের স্পিড কমে যাবে কারণ প্রতিটি বিজ্ঞাপন লোডিং হতে টাইম নেবে তো সেজন্য যেকোনো বিজ্ঞাপন খুব কম শো করানোর চেষ্টা করবেন এতে করে পেজ স্পিড কমে যাবে এবং পেজ ক্লিক করার সাথে সাথে পুরো পেইজটি লোডিং হয়ে যাবে

স্পিড বাড়ানোর উপায়

প্লাগিন ব্যবহার

ওয়ার্ডপ্রেস এর জন্য দারুন কিছু প্লাগিন রয়েছে যেগুলো ব্যবহার করে খুব সহজেই ওয়েব সাইটের স্পিড বেড়ে যায় সেগুলোর নাম
Wp rocket
Wp caching এবং আরো কিছু পেইড প্লাগিন আছে যেগুলো ওয়েবসাইটটি ব্যবহার করলে খুব দ্রুত লোডিং টাইম হয়ে যায় এক থেকে দশ এবং আরো কিছু পেইড প্লাগিন আছে যেগুলো ওয়েবসাইট ব্যবহার করলে খুব দ্রুত লোডিং টাইম হয়ে যায় এক থেকে দের সেকেন্ডের ভিতর সেকেন্ডের ভিতর পুরো পেইজটি একবারে শো করে

AMP Plugin ব্যবহার করা

সবচেয়ে ভালো হবে আপনি যদি AMP প্লাগিনটি ইউজ করেন এবং এটি শুধুমাত্র গুগল থেকে আপনার ওয়েবসাইটে ভিজিট করা হবে তখনই শুধু দেখা যাবে এবং এক সেকেন্ডের কম সময় লাগবে পুরো পেজটি লোড হতে এটি আপনি আপনার ওয়ার্ডপ্রেস প্লাগিন ম্যানেজার থেকে পেয়ে যাবেন এবং ইন্সটল করে সেটআপ করে নিবেন এতে করে পেজ লোডিং অনেকটাই কমে যাবে

শেষ কথা

আপনি যদি পুরো ওয়েবসাইটটি তৈরি করেন এবং সবকিছু নিজেই বানান তাহলে পেজ স্পিড টাইম বাড়বে না এবং সবকিছু ভালোভাবে কাস্টমাইজ করে নিবে বিশেষ করে যে পিকচারগুলো ব্যবহার করবেন সেগুলো ভালোভাবে কাস্টমাইজ করা না থাকলে অনেকটাই ভেজাল হয়ে যায়

আশা করি পোস্টটি আপনার কাছে ভালো লেগেছে ভালো লাগলে শেয়ার করতে পারেন এবং এই ধরনের আরও পোস্ট পেতে আমাদের ওয়েবসাইট প্রতিদিন ডিজিট করুন ধন্যবাদ সবাইকে

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button