Android Review

Android ৩ টি অসাধারণ ফোনের রিভিউ দেখে নিন

হ্যালো বন্ধুরা আশা করি সকলে ভালো আছেন। আজকে আমি আপনাদের জন্য দারুন একটি পোস্ট নিয়ে হাজির হয়েছি

আজকাল প্রায় সবার হাতেই রয়েছে এন্ড্রয়েড ফোন। অনেকে আছেন যারা কোনো ফোন সম্পর্কে না জেনেই একটা ফোন কিনে ফেলেন। এবং পড়ে পস্তাতে হয়, যদি সেই ফোনটা খারাপ হয়।

তো আজকে আমি আপনাদের জন্য বাংলাদেশ এর ১৫,০০০ টাকার মধ্য সেরা ৩ টি ফোনের রিভিউ নিয়ে হাজির হয়েছি। তো চলুন আর দেরি না করে পোস্ট টি শুরু করা যাক।

Walton RX8

১২,০০০ টাকার ভিতরে আপনি যদি কোনো স্টাইলিশ ফোন খুজে থাকেন তাহলে এটা আপনার জন্য। তবে প্রথমেই বলে রাখি এটা গেমিং খুব একটা ভালো পারফরম্যান্স দিবে না আপনাকে এই ফোনটি। কারণ এই ফোনে যে প্রসেসর ব্যাবহার করা হয়েছে সেটা ৪ বছর আগের তৈরি প্রসেসর। কিন্তু রেগুলার কাজ মানে যে সকল কাজ স্বাভাভিক ভাবে একজন ইউজার করে থাকে, সে সকল কাজের জন্য এটা অনেক ভালো একটা সার্ভিস দেবে আপনাকে। এছাড়া আপনি যদি কাজের ফাকে, ছোট – খাটো গেম খেলে থাকেন তাহলে আপনার জন্য এই ফোনটি। কিন্তু আপনি যদি একজন হ্যাভি গেমার হন, তাহলে এই ফোন টি থেকে আপনার দূরে থাকাই ভালো।

এই মোবাইল টি ৪ জিবি র‍্যাম ও ৬৪ জিবি স্টোরেজ পাবেন। এই ফোনটির ডিসপ্লে তে ফুল HD রেজুলেশন পাবেন। আর এই ফোনটির সকল ডিজাইন অনেক সুন্দর। এবং এই ফোনটির রেয়ার প্যানেল (পেছনের দিকটা) দেখতে লাগবে গ্লাসের মতো। এই ফোনটি ১২,০০০ টাকা বাজেটে খুবই প্রিমিয়াম বলা যেতে পারে। তবে দুঃখের বিষয় ফোনটিতে রয়েছে মাত্র 3600mAh এর ব্যাটারি রয়েছে। যা আপনাকে ১২ ঘন্টার মতো ব্যাক আপ দিতে পারবে। তাই আপনি যদি এই ফোনটিকে কিনতে চান তাহলে আপনাকে এই ব্যাটারির দিকটা একটু ছাড় দিতেই হবে। তবে এই ক্যামেরা টি কিন্তু অসাধারণ এই ফোনটি। ফোন টি দ্বারা ভালো ছবি তোলা সম্ভব। ফোন টির ক্যামেরা ১২ মেগাপিক্সেল এর। তাছাড়া ও এই ফোনে রয়েছে ওয়েব ক্যাম।

এই ফোনটি থেকে তাড়া দূরে থাকবেন যারা হ্যাভি ইউজার। গেমিং তরফ থেকে ফোন টা খারাপ হলেও অন্যান্য কাজের জন্য এটা অসাধারণ।

Samsung Galaxy A21s

এই ফোনটি একটি দারুন একটি ফোন। আর আপনারা যানেন ই যে স্যাম্ফনি মানেই ভালো একটা জিনিস। তো যাই হোক এই ফোনটির দাম মাত্র ১৭,০০০ টাকা তবে আপনারা যদি অনলাইন কোনো শপ, যেমনঃ দারাজ, আলিবাবা ইত্যাদি৷ তাহলে আপনারা ফোনটি পেয়ে যাবেন ১৫,০০০ টাকায়। এটা অনেক ভালো ডিজাইন এর একটি ফোন। এটার রেয়ার প্যানেল দেখতে অনেক সুন্দর। ফোনটির রেয়ার প্যানেল টি সম্পুর্ন প্লাস্টিকের তৈরি। কিন্তু স্যামসাং কোম্পানি যানে কিভাবে প্লাস্টিক কেও সুন্দর করা যায়। তারা ফোনটির রেয়ার প্যানেল করে তুলেছে অসাধারণ সুন্দর, আকর্ষণীয় এবং অন্য সব থেকে আলাদা। এটার রেয়ার প্যানেল গ্লোসি ফিনিস যার থেকে একটা গ্রালিয়েন্ট কালার দেখতে পাবো আমরা।

এটার ডিসপ্লে হলো ৬.৫ ইঞ্চি। এবং এটা HD+ রেজুলেশন এর একটি ডিসপ্লে। এই বাজেটে ফোনটির ডিসপ্লে খুব ভালো বলেই আমার মনে হয়েছে।

এই ফোনটিতে স্যামসাং কোম্পানির নিজস্ব একটি প্রসেসর ব্যবহার করা হয়েছে। কিন্তু এই প্রসেসর টি গেমিং এর ক্ষেত্রে খুব ভালো একটা সার্ভিস দেবে না। কিন্তু একেবারেই দেবে না তা কিন্তু নয়।

যারা নরমালি সাধারণ গেম খেলেন তাদের জন্য ফোনটি বেস্ট বাট, হ্যাভি ইউজারদের জন্য এই ফোনটি নয়।

ফোনটির অপারেটিং সিস্টেম হিসেবে রয়েছে এন্ড্রয়েড ১০। ফোনটির ব্যাটারি হিসেবে রয়েছে 5000mAh এর একটি ব্যাটারি। এবং ফোনটির বক্সে পেয়ে যাবেন ১৫ ওয়ার্টের একটি চার্জার। ফোনটর রেয়ারে আপনারা ৪ টি ক্যামেরা পেয়ে যাবেন। এবং ৪ টি ক্যামেরা দিয়েই অনেক সুন্দর ছবি তুলতে পারবেন আপনারা।

যাই হোক যারা হ্যাভি গেমিং ইউজার তাদের এই ফোন থেকে দূরে থাকাই ভালো।

Redmi 9 Power

এটি কম দামি ফোনেএ মধ্য দারুন একটি ফোন হতে পারে আপনার জন্য। ফোন টির দাম ১৪,৯৯০ টাকা মানে ১৫,০০০ টাকা। ফোনটি আপনারা পাবেন ৪ জিবি র‍্যাম ও ৬৪ জিবি স্টোরেজ এ। ফোনটির বক্স কন্টেন এ আপনারা পাবেন ফোনটি কাভার করার জন্য একটি রেয়ার কভার। তাছাড়াও পাবেন ২২ ওয়ার্টের একটি চার্জার। রেডমি এই দিক দিয়ে অনেক ভালো একটা কোম্পানি, কারণ ফোনে সাপোর্ট পায় ১৮ ওয়ার্ট আর তারা দেয় ২২ ওয়ার্টের। এটা আসলেই অনেক ভালো বলে আমি মনে করি।

এই ফোনটির রেয়ারে পাবেন ম্যাট ফিনিস। এই ফোনটির রেয়ার ডিজাইন অনেক টা রিয়েলমি ফোনের মতো। আমরা অনেক রিয়েলমি ফোনে পেছনে বড় করে রিয়েল্মি লেখা দেখেছি আর এই বার রেডমি ও সেটা করলো। ফাইনালি রেডমি, রিয়েলমি কে নকল করলো 😁।

অন্যান্য ফোনে যেখানে পাওয়ার বাটন থাকে রেডমি সেখানে দিয়েছে ফিঙ্গার প্রিন্ট সেন্সর। ফোনটির ডিসপ্লে খুব ভালো বলে আমি মনে করি। এছাড়াও ফোনটির ডিসপ্লে ৬.৯ ইঞ্চি। রেগুলার কাজের জন্য ফোনটি অনেক ভালো। কিন্তু হ্যাভি ইউজে কিছুটা ল্যাগ করতে পারে। উপরের ২ টির মতো এই ফোন টিও গেমিং এর দিক থেকে ততটাও ভালো ভালো না। তবে আপনারা মিডিয়াম গ্রাফিক্স এর গেম বিনা ঝামেলায় আরামসে খেলতে পারবেন। ইউজার কমেন্ট অনুযায়ী ফোনটি পাবজি খেলার সময় হাই গ্রাফিক্স এ খেললে বারবার ল্যাগ পাবেন। তবে লো গ্রাফিক্স এ খেললে বেশি ল্যাগ পাবেন না। ভালো ভাবেই খেলা যেতে পারে।

পেছনে রয়েছে ৪ টি ক্যামেরা। এবং সামনে রয়েছে ৮ মেগা পিক্সেলের একটি ক্যামেরা। সব ক্যামেরা দিয়ে ভালো ছবি তোলা সম্ভব।

ব্যাটারি হিসেবে পাচ্ছেন 6000mAh এর একটি ব্যাটারি যা দিয়ে মিডিয়াম ইউজারা রা ২ দিনের মতো ব্যাক আপ পাবেন এবং হ্যাভি ইউজার রা পাবেন ১ দিনের বা তার কম পেতে পারেন। সেটা ইউজের উপর নির্ভর করে।

সব কিছু মিলে আমার মনে হয়েছে ফোন টি অনেক ভালো তবে হ্যাভি ইউজে এটা না কেনায় ভালো বলে মনে করি।

এখান থেকে আপনাদের যে ফোনটি ভালো লাগে সেটা কিনতে পারেন। এর এই ফোন গুলো আপনারা যেকোনো অনলাইন শপ দারাজ, আলিবাবা ইত্যাদি যেকোনো স্টোর থেকে কিনতে পারেন। তবে আমার মতে আপনারা ফোনো কোনো মোবাইল শপ থেকে ফোন টি কিনে নিবেন। কারণ নিজে দাড়িয়ে থেকে ফোনটি দেখে শুনে কেন টায় বেস্ট হবে। তাই আপনারা চাইলে আপনাদের আশে পাশের যে কোনো মোবাইল সপ থেকে ফোন টি কিনে নিতে পারেন। আর এর পর যদি আপনারা কোনো ফোনের রিভিউ চান তো আমাকে কমেন্টে যানাতে পারেন। আর পুড়ো পোস্ট টি পড়ার জন্য ধন্যবাদ।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button